লোকসভায় ফের অভব্য আচরণ, গণতন্ত্রের পক্ষে লজ্জাজনক, মন্তব্য গেরুয়া শিবিরের

Loading

লড়াই ২৪ ডেস্ক:  পেগাসাস কান্ডে উত্তেজনা সংসদে। বুধবার লোকসভায় ওয়েলে নেমে এসে স্লোগান দিতে দেখা গেল বিরোধীদের। অনেকের হাতে ধরা ছিল প্ল্যাকার্ড। বহু সাংসদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তাঁরা স্পিকারের দিকে কাগজ ছুঁড়ে দিচ্ছিলেন। এজন্য সাসপেন্ড করা হতে পারে লোকসভার ৯ জন সাংসদকে।

ANI-সূত্রে খবর, সাসপেন্ড হতে পারে সাংসদ গুরজিৎ সিংহ অজলা, টিএন প্রথাপন, মণিকাম ঠাকুর, রবনীত সিংহ বিট্টু, হিবি ইডেন, জোথিমানি সেন্নিমালাই, সপ্তগিরি শংকর উলাকা, ভি বৈথিলিঙ্গম, এএম আরিফ। শুধু কাগজ ছোঁড়াই নয়, স্পিকারের প্রতি অভব্য আচরণের অভিযোগ উঠেছে তাদের উপর।

https://news.google.com/publications/CAAqBwgKMJ-knQswsK61Aw?hl=en-IN&gl=IN&ceid=IN:en

আরও পড়ুন…………mobile under 10000 : ৫টা ক্যামেরা! দারুণ ব্যাটারি, ১০ হাজারের মধ্যে নতুন ফোন

বাদল অধিবেশনের শুরুর দিন থেকেই উত্তাল সংসদের দুই কক্ষ। বুধবারও লোকসভা ও রাজ্যসভার অধিবেশন বারবার স্থগিত করতে হয়। বিরোধীদের এইরকম ব্যবহারের তীব্র বিরোধিতা করে চলেছে বিজেপি। তাদের অভিযোগ, সংসদে এইরকম আচরণ বিশ্বের বৃহতম গণতন্ত্রের পক্ষে লজ্জাজনক। সেই সঙ্গে সংসদের সম্মান ক্ষুণ্ণ।

লোকসভার বাইরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় বিজেপি নেতা অনুরাগ ঠাকুর বলেন, ‘প্রতিবাদ অবশ্যই করা যায়, কিন্তু আজ এই বিরোধীরা গণতন্ত্রের মন্দিরে মর্যাদা ও সম্মানকে ক্ষুণ্ণ করছে।’

উল্লেখ্য, পেগাসাস ইস্যুতে অধিবেশনের বাকি দিনগুলয় কেন্দ্রকে চাপে রাখার কৌশল স্থির করতে বুধবার বৈঠকে বসে ১৮টি বিরোধী  দল। এদিন অধিবেশন শুরুর আগে হওয়া ওই বৈঠকে যুক্ত ছিলেন কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধীও। বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রাহুল গান্ধী বলেন, ‘আমাদের বলা হয়েছে সংসদে পেগাসাস নিয়ে কোনো আলোচনা হবে না। কিন্তু কেন এই আলোচনা করতে দেওয়া হবে না?’ সংসদে বিরোধী কণ্ঠরোধ করা চেষ্টা চলছে বলে তাঁর অভিযোগ।

Author

Share Please

Make your comment