বারাসাতের এক নার্সিংহোমের মহিলাকর্মীর উপর যৌন হেনস্থা, অভিযুক্ত ওয়ার্ড বয়

0
84

বারাসাতের এক নার্সিংহোমের মহিলাকর্মীর উপর যৌন হেনস্থা, অভিযুক্ত ওয়ার্ড বয়

উত্তর ২৪ পরগনা: বারাসাতের একটি নার্সিংহোমের এক মহিলা কর্মীর উপর যৌন হেনস্থা করার অভিযোগ উঠল ওই নার্সিংহোমেরই এক ওয়ার্ড বয়ের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, দিনের পর দিন ওই মহিলা কর্মীর উপর উপর শারীরিক নিগ্রহ চলেছে।

প্রথমে নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ করা হয়। তারপর রবিবার বারাসাত থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ওই মহিলা কর্মী।

জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত কর্মীর নাম সুজয় চক্রবর্তী। ওই মহিলা কর্মী বারাসাত স্টেট জেনারেল হাসপাতালের উল্টো দিকের নার্সিংহোমের সাফাই বিভাগের কর্মী।

 

 

তিনি জানিয়েছেন, দিনের পর দিন তাঁর উপর শারীরিক নিগ্রহ চালিয়েছে সুজয়। এমনকি হুমকিও দিত যে কারও কাছে কিছু বললে বড়সড় ক্ষতি করে দেবে।

প্রথমে ভয় পেয়ে কোনও প্রতিবাদ করতে পারেননি ওই মহিলা। কিন্তু পরে মুখ খোলেন ওই মহিলা। তিনি জানিয়েছেন, কয়েকদিন আগে নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন তিনি।

সেই অভিযোগের ভিত্তিতে সুজয়কে কাজ থেকে বরখাস্ত করে নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ। তারপর থেকে সুজয় আরও আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠে।

তিনি জানান, বিগত বেশ কয়েক দিন ধরেই সুজয় ফোন করে হুমকি দিচ্ছে তাঁকে। শাসিয়ে বলছে, অভিযোগ না তুললে প্রাণে মেরে দেওয়া হবে। এমনকি বারাসাত নবপল্লী আনন্দনগরে ওই মহিলার বাড়িতে লোকজন পাঠিয়ে হুমকিও দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ।

অতিষ্ট হয়ে অবশেষে রবিবার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ওই মহিলা। তিনি পুলিশকে জানিয়েছেন, কয়েক মাস ধরে নার্সিংহোমের পরিত্যক্ত একটি জায়গায় তাঁর উপর শারীরিক নিগ্রহ চালাত ওয়ার্ড বয় সুজয়।

রবিবার সন্ধ্যে পর্যন্ত এই ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করেনি বারাসাত থানার পুলিশ। তবে, পুলিশ জানিয়েছে, ইতিমধ্যে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

অভিযুক্তর বিরুদ্ধে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করবে প্রশাসন। নার্সিংহোমের অন্যান্য কর্মীদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারে পুলিশ।

শেয়ার করে ভারতীয় হওয়ার গর্ব করুন

আপনার মতামত জানান