উপনির্বাচনে মমতার বিরুদ্ধে প্রার্থী দিচ্ছে না কংগ্রেস

0
114

 

লড়াই ২৪ ডেস্ক: ভবানিপুর কেন্দ্রে উপনির্বাচনে পিছিয়ে এলো কংগ্রেস। মমতার বিরুদ্ধে দেওয়া হবে না প্রার্থী, বেরোবে না প্রচারও। এদিন সাংবাদিক বৈঠকে প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি অধীর চৌধুরি বলেছেন, ‘কংগ্রেস কোনো প্রার্থী দিচ্ছে না ভবানিপুরে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধেও প্রচারে নামানো হচ্ছে কাউকে।’ এটা কি ভোটের পরে বামদের সাথে জোট ভাঙার কোনো ইঙ্গিত?

প্রদেশ সভাপতি আগেই বলেছিলেন, মমতার বিরুদ্ধে ভবানিপুরে প্রার্থী দিতে চায় কংগ্রেস। তাঁর এই ঘোষণার পর হাইকম্যান্ড তরফে তাকেই প্রার্থী নির্বাচনের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। এবার হটাৎি বেঁকে বসলেন তিনি। এই বেঁকে বসার কারণ কি আসন্ন ২০২৪ বিরোধী মহাজোট? ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনে অন্যতম মুখ হতে চলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, সেই জন্যই কি হটাৎ উপনির্বাচনের পথ থেকে সরে এলো কংগ্রেস?

Read more…………………..করোনায় বিধস্ত শিক্ষা ব্যবস্থা, অনলাইন ক্লাস থেকে বিরত গ্রামাঞ্চলের অধিকাংশ খুদে-পড়ুয়া

অপরদিকে, কংগ্রেসের সিধান্ত জানা পর সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেছেন, ‘তৃণমূল-বিজেপির বিকল্প তৈরি করতে আমরা প্রার্থী দেবে ভবানিপুরে। আমরা কংগ্রেসকে ব্যাক্তিগত ভাবে তাদের সিধান্ত বদল করতে বলতে পারি না।’ তবে বামেরা আগেই জানিয়েছিল কংগ্রেস প্রার্থী না দিলেও তাঁরা ভবানিপুরে প্রার্থী দেবে। কিন্তু হটাৎ করে কংগ্রেসের বেঁকে বসা ভালো চোখে দেখছে না আলিমুদ্দিন স্ট্রিট। জোটে যে ফাটল ধরছে তা বেশ ইঙ্গিত হচ্ছে তাদের বক্তব্যে।

কিন্তু মাস খানেক আগেই অধীর চৌধুরি নিজে মমতার বিরুদ্ধে উপনির্বাচনে প্রার্থী দিতে ব্যক্তিগত ভাবে নারাজ ছিলেন। তারপর শনিবার উপনির্বাচনের নির্ঘণ্ট ঘোষণা হতেই সোমবার প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন, ভবানীপুরে বামেদের সমর্থনে লড়াই করা হবে। এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণের দায়িত্ব কংগ্রেস কার্যকরী সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধির কাঁধে ছেড়ে দেওয়া হয়। কিন্তু অধীর-সহ প্রদেশ নেতৃত্বের প্রস্তাব নাকচ করেছে এআইসিসি। এবার প্রশ্ন উঠছে, তাহলে এর আগে কি বামেদের সাথে জোট অটুট রাখতেই মমতার বিরুদ্ধে প্রার্থী দিতে চেয়েছিলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি?

Advertisement
শেয়ার করে ভারতীয় হওয়ার গর্ব করুন

আপনার মতামত জানান