তামার জল: শুধু উপকারী নয়, তামার জল ক্ষতিও করতে পারে, পান করার আগে জেনে নিন এই জিনিসটি

Loading

স্বাস্থ্য টিপস: তামার জল স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী বলে মনে করা হয়, তবে যদি এটি সঠিকভাবে খাওয়া না হয় তবে এটি স্বাস্থ্যের ক্ষতি করতে পারে।

 

তামার পাত্রের পানি: তামার পানি পান করা স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। এটি পানি বিশুদ্ধ করার ক্ষমতা রাখে। অনেকেই ওয়াটার পিউরিফায়ারের পরিবর্তে তামার পানি পান করতে পছন্দ করেন। তামার জলে ভাত এবং পিত্তের ভারসাম্য বজায় রাখার বৈশিষ্ট্য রয়েছে। তামার জল পান করা স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী, তবে এটি পান করার আগে কিছু বিষয়ে মনোযোগ দেওয়া প্রয়োজন, অন্যথায় এটি স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক প্রমাণিত হতে পারে। আসুন জেনে নেই তামার জল পান করার আগে কী কী বিষয় মাথায় রাখা উচিত।

https://news.google.com/publications/CAAqBwgKMJ-knQswsK61Aw?hl=en-IN&gl=IN&ceid=IN:en

 

মাটিতে ফেলবেন না

 

অনেকেই ঘুমানোর আগে তামার পাত্র মাটিতে রেখে সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর এর পানি পান করেন, কিন্তু তা ক্ষতিকর হতে পারে। তামার জল মাটিতে রাখা উচিত নয়। এটি একটি কাঠের টেবিলে রাখা উচিত, অন্যথায় এটি স্বাস্থ্যের ক্ষতি করতে পারে।

 

অ্যাসিডিটিতে ক্ষতিকর

 

তামার জল স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী, তবে অ্যাসিডিটির রোগীদের তামার জল না খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। এই পানির প্রভাবে গরম হয়ে যায় যা অ্যাসিডিটির রোগীদের ক্ষতি করতে পারে।

 

সকালে খালি পেটে পান করুন

 

সকালে খালি পেটে তামার জল পান করতে হবে। খাওয়ার পর তামায় রাখা পানি পান করলে ক্ষতি হতে পারে। খালি পেটে তামার জল খেলে হজমে উপকার হয়, খাবারের পরে পান করলে হজম সংক্রান্ত সমস্যা হতে পারে।

 

এটা এত দিন রাখা প্রয়োজন

 

আপনি যদি এই জল পান করে আপনার স্বাস্থ্যের উন্নতি করতে চান তবে তামার পাত্রে কমপক্ষে 8 ঘন্টা জল রাখতে হবে। আপনি একটি তামার পাত্রে 48 ঘন্টা জল সংরক্ষণ করতে পারেন। তামার পাত্রে দীর্ঘক্ষণ রাখার পরও পানির বিশুদ্ধতা বজায় থাকে।

Author

Share Please

Make your comment