বিয়ের আসরে মিষ্টি নিয়ে গণ্ডগোল, জামাইবাবুর হাতে খুন শ্যালক

0
114

আগ্রা: আনলকের মধ্যে আগ্রার আধুল্যাপুর গ্রামে বিয়ের অনুষ্ঠান হচ্ছিল। সামাজিক দূরত্ব কিংবা মাস্কের কোনও বালাই নেই। সব আত্মীয়রাও এসেছেন। বিয়ের পর্ব মিটে যাওয়ার পর খেতে বসার আগে মদ্যপান করেন বর। সবশেষে পাতে যখন মিষ্টি পড়ে তখন থেকেই ঝামেলা শুরু হয়। কারণ বরের চাহিদা মতো মিষ্টির জোগান দিতে পারেনি কন্যাপক্ষ।

বর এবং তার সাঙ্গপাঙ্গরা খারাপ খাবার, আয়োজন খুব বাজে এসব বলে ঝামেলা শুরু করে। খাবার, জল এসব ফেলে দেয়। সকলেই মদ্যপ থাকায় তাদেরকে কোনও ভাবেই বোঝানো যাচ্ছিল না।

বউ-এর এক ভাই পুনিত জানায়, রাত ৮.৩০ নাগাদ বরযাত্রী এসে প্রথমে টিফিন চায়। সেইমতো তাদের মিষ্টি-জল সবই দেওয়া হয়। রাতে খেতে বসে বর মনোজ কুমার ও তার বন্ধুরা ঝামেলা শুরু করলে মনজের এক বন্ধু তার দেশি পিস্তল থেকে গুলি ছোঁড়ে। সেই গুলিতে তার দাদা মারা যায়।

এরপর মনোজ এবং তার বন্ধুরা তাদের ৯ বছরের ভাই প্রসূনকে জোর করে তাদের এসইউভি-তে তুলে নিয়ে যায়। নিয়ে যাওয়ার পথে গাড়ির ধাক্কায় ৩ জন মহিলা গুরুতর জখম হন। অনেকবার ফোন করা সত্বেও ফিরে আসেনি রাত ৩ টে নাগাদ গ্রামের শেষ প্রান্তে তার ভাইকে খুন করে ফেলে যায়। গলায় গভীর ক্ষত ছিল। এমনকী মুখেও ধারালো অস্ত্রের কোপ বসানো হয়েছে।

ঘটনায় অভিযোগ দায়ের করেছেন বউ-এর বাবা রামপাল যাদব। তিনি জানিয়েছেন, ওই ৩ মহিলার মধ্যে একজনের অবস্থা গুরুতর। পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, খাবার নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয়। মনোজের গাড়ির খোঁজ চলছে। তার বাড়ির কিছু সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত মনোজ এবং তার বন্ধুদের খোঁজ পাওয়া যায়নি।

Advertisement
শেয়ার করে ভারতীয় হওয়ার গর্ব করুন

আপনার মতামত জানান