পিছিয়ে গেল,ইমপিচমেন্ট প্রক্রিয়া

ওয়াশিংটন – মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ইমপিচমেন্ট প্রক্রিয়া পিছিয়ে দেওয়া হল  দু’সপ্তাহ।  মার্কিন সেনেট যাতে নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আইনি বিষয়সূচি  ও ক্যাবিনেট সদস্যদের উপর মনোনিবেশ করতে পারে, তার জন্য  এই সিদ্ধান্ত বলে জানানো হয়েছে। 

সেনেটের শীর্ষ রিপাবলিকান মিচ ম্যাকনেল এই সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেছেন। সেনেটের মেজরিটি লিডার এবং ডেমোক্র্যাট চাক শুমার জানিয়েছেন, আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে মামলা চালু হবে। মামলা পিছিয়ে দিয়ে শুমার বলেছেন, এই সময়টায় তাঁরা দ্রুত বাইডেনের নির্বাচিত ক্যাবিনেট সদস্যদের স্বীকৃতি দেওয়া-সহ অন্যান্য কাজ করে ফেলতে পারবেন। নিম্নকক্ষ এবং ট্রাম্পের আইনজীবীরাও মামলার প্রস্তুতির জন্য বাড়তি সময় পাবেন।

উল্লেখ্য, আমেরিকার ইতিহাসে এই প্রথম কোনও প্রেসিডেন্ট দ্বিতীয় বার ইমপিচমেন্টের মুখে পড়লেন। 

প্রাক্তন হয়ে সেনেটে দোষী সাব্যস্ত হয়ে ইমপিচড হলে কী হবে?

ম্যাককনেলে জানিয়েছেন, ইমপিচমেন্ট প্রস্তাব সেনেটে পাশ হলে ভবিষ্যতেও আর প্রেসিডেন্ট হওয়ার দৌড়ে নামতে পারবেন না ট্রাম্প। প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট হিসেবে কিছু সুযোগ-সুবিধাও হারাবেন। সবচেয়ে বড় কথা, আমেরিকার ইতিহাসে প্রথম ইমপিচড প্রেসিডেন্ট হিসেবে নাম উঠবে ট্রাম্পের, আর সেটাই চান ট্রাম্প-বিরোধীরা।

শেয়ার করে ভারতীয় হওয়ার গর্ব করুন

আপনার মতামত জানান