এ কোন সমাজ, যৌন হেনস্তার প্রতিবাদ করায় খুন সাংবাদিক

0
44

উত্তরপ্রদেশ: যৌন হেনস্তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার জন্য খুন হতে হল এক সাংবাদিককে। তাঁর পরিবারকে ১০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। তবে ঘটনাটিকে কেন্দ্র করে সরব হয়েছেন রাহুল গান্ধী থেকে শুরু করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সহ সমস্ত বিরোধী নেতৃত্ব।

ঘটনার সূত্রপাত ১৬ জুলাই। নিজের ভাইঝির ওপর যৌন হেনস্তার প্রতিবাদ জানিয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছিলেন গাজিয়াবাদ শহরের সংবাদপত্র জনসাগর টুডে-এর সাংবাদিক বিক্রম যোশী। এই ঘটনার কিছু দিন পর ২০ জুলাই, সোমবার রাত ১০:৩০ টা নাগাদ বাইকে করে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি। পেছনে বসে ছিল তাঁর দুই মেয়ে। সেই সময় মেয়েদের চোখের সামনে গুলি করা হয় বিক্রম যোশীকে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করান হয়। বুধবার ভোর ৪টে নাগাদ মৃত্যু হয়ছে তাঁর।

পুলিশ সূত্রে খবর, সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে ৯ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সাসপেন্ড করা হয়ছে বিজয়নগর পুলিশ স্টেশনের ইনচার্জকে। মৃত সাংবাদিকের পরিবারকে ১০ লক্ষ টাকা আর্থিক সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

যদিও পুরো ঘটনায় পুলিশ প্রশাসনের একাংশের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলছেন বিরোধীরা। যোগী আদিত্যনাথের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে রাহুল গান্ধী ট্যুইটে বলেন, বিক্রম যোশী কে খুন হতে হল কারণ তিনি তাঁর ভাইঝির ওপর যৌন হেনস্তার প্রতিবাদ করেছিলেন। তাঁর পরিবারকে সমবেদনা জানাই। যোগী আদিত্যনাথ উত্তরপ্রদেশের রাম রাজ্য স্থাপন করার আশ্বাস দিয়েছিলেন। কিন্তু এই রাজ্য চলছে গুন্ডারাজ।

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘটনা প্রসঙ্গে ট্যুইট করে বলেন, বিক্রম যোশীর পরিবারকে সমবেদনা জানাই। গোটা দেশজুড়ে একটি ভয়ের বাতাবরণ তৈরি হয়েছে। কণ্ঠরোধ করার চেষ্টা করা হচ্ছে। সংবাদমাধ্যমকেও বাদ দেওয়া হচ্ছে না।

শেয়ার করে ভারতীয় হওয়ার গর্ব করুন

আপনার মতামত জানান