Wed. Aug 10th, 2022
0 0
Read Time:2 Minute, 54 Second

কলকাতার মডেল-অভিনেত্রী আত্মহত্যার চেষ্টা করলেন। প্রাণে বেঁচে গেলেও বর্তমানে আশঙ্কাজনক অবস্থায় মুকুন্দপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন এই মডেল। আত্মহত্যার চেষ্টার আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্টও করেছিলেন তিনি। ফেসবুকে পরিবারের বিরুদ্ধে পোস্ট দিয়ে রাতে বেশ কিছু ঘুমের ওষুধ খান। ভোররাতে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

 

সূত্রের খবর, দেবলীনা দে (২৮) নামে ওই যুবতী কালনার বাসিন্দা। গত দেড় বছর ধরে তিনি মুকুন্দপুর এলাকার উত্তরিকা আবাসনে একটি ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে থাকতেন। কিছু সিরিয়ালে কাজও পেয়েছেন। তবে আয় খুব বেশি হয়নি।

 

পরিবারের সদস্যরা জানান, পরিবারের সঙ্গে মাঝেমধ্যেই ঝগড়া হত। পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, তারা বাড়ি ভাড়া, রান্নার বেতন এমনকি কেনাকাটার জন্য মাসে দশ হাজার টাকা দিতেন। কালনায় তার পৈতৃক বাড়িতে একটি সন্ধ্যার পার্টির পরে, বাড়ির সমস্ত সদস্য তার বাবার কাছে একটি নতুন ফ্যাশন বুটিক খোলার জন্য লক্ষ লক্ষ টাকা চেয়েছিলেন। সবচেয়ে বেশি প্রতিবাদ করেন ভাই। ফলে দেবলীনা তার ভাইয়ের সাথে ঝগড়া এমনকি মারামারিতে জড়িয়ে পড়ে।

 

ওই রাতেই ভাইকে হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক, ইন্সটা থেকে ব্লক করে দেন। পরদিন বিকেলে দেবলীনাকে একটি গাড়ি ভাড়া করে কলকাতায় পাঠানো হয়।

 

এই মেয়েটি মুডি আর শর্ট টেম্পার, তাই আগের দিন বাড়িতে এত অশান্তি হয়েছে। তাই মা আসতে চেয়েছিলেন। কিন্তু মেয়েটি মাকে আসতে নিষেধ করে।

 

গত ২৪ জুন নরেন্দ্রপুরের একটি বাগানবাড়িতে একটি অ্যাডভেঞ্চার মিউজিক ভিডিওর শুটিং হয়েছিল। সকালে সেখানে গিয়ে দেখা যায়, বিকেলে কাউকে কিছু না বলে হঠাৎ উধাও হয়ে যান দেবলীনা দে। সে তার মোবাইল বন্ধ করে দেয়। তারপর ফেসবুকে পরিবারের বিরুদ্ধে পোস্ট করে রাতে বেশ কিছু ঘুমের ওষুধ খায়। এরপর ভোররাতে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %
শেয়ার করে ভারতীয় হওয়ার গর্ব করুন

Average Rating

5 Star
0%
4 Star
0%
3 Star
0%
2 Star
0%
1 Star
0%

আপনার মতামত জানান

%d bloggers like this: