খোদ বিজেপি নেতাই ‘অনুপ্রবেশকারী’,

মুম্বাই –  বাংলাদেশ থেকে অনুপ্রবেশ প্রসঙ্গে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে বারবার তুলোধোনা করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সিএএ, এনআরসি, এর মাধ্যমে  আনুপ্রবেশকারীদের চিহ্নিত করতে ব্যস্ত, তবে সামনে এল নতুন তথ্য। খোদ বিজেপি নেতাই বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারী। ভুয়ো নথি বানিয়ে দীর্ঘদিন ধরে এ দেশে থাকছিলেন। এমনকী, গেরুয়া শিবিরে পদাধিকারীও ছিলেন তিনি। ঘটনায় অসস্তিতে পড়েছে বিজেপি। 

 মুম্বাই পুলিশ সূত্রে খবর, পশ্চিমবঙ্গে উত্তর ২৪ পরগনার মালপোতা গ্রাম পঞ্চায়েতে নিজের আদি বাড়ি রয়েছে, এই পরিচয় দিয়ে নথি তৈরি করেছিলেন উত্তর মুম্বইয়ের সংখ্যালঘু সেলের প্রধান রুবেল জনু শেখ। সেখানকার এক স্কুলের মাধ্যমিকের সার্টিফিকেট জমা করেছিলেন।  দেখা যায়, মালপোতা গ্রামে রুবেল নামে কেউ থাকতেন না। এমনকী, স্কুলের সার্টিফিকেটটিও সম্পূর্ণ ভুয়ো। এই তথ্য প্রকাশ্যে আসতেই বিজেপিকে তীব্র কটাক্ষ করেছে বিরোধীরা।

এ প্রসঙ্গে মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ জানিয়েছেন, রুবেল অবৈধভাবে এ দেশে বসবাস করছিল,তাঁর কটাক্ষ, “বিজেপি কি নিজের দলের নেতাদের নথি যাচাই করে না?” এই ইস্যুতে বিজেপিকে ব্যঙ্গ করেছে এনসিপি, কংগ্রেসও। মহারাষ্ট্র কংগ্রেসের মুখপাত্র শচীন সাওয়ান্তের প্রশ্ন, “নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনে কি বিজেপি কর্মীদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করেছেন অমিত শাহ?”

শেয়ার করে ভারতীয় হওয়ার গর্ব করুন

আপনার মতামত জানান