গৃহবধূকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে

Loading

গৃহবধূকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে

উত্তর দিনাজপুর: পণের টাকা দিতে না পারায় গৃহবধূকে আগুনে পুড়িয়ে খুন করার অভিযোগ উঠল স্বামী, শ্বশুর ও শ্বাশুড়ির বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুর জেলার ডালখোলা থানার লোকনাথ পাড়া এলাকায়। ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

https://news.google.com/publications/CAAqBwgKMJ-knQswsK61Aw?hl=en-IN&gl=IN&ceid=IN:en

মৃতার নাম জ্যোতি রজক, বয়স ২২ বছর। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ দেহ উদ্ধার করে এবং ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ডালখোলা থানার পুলিশ। অভিযুক্ত শ্বশুর বাড়ির লোকেরা পলাতক।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, উত্তর দিনাজপুর জেলার ডালখোলা থানার লোকনাথ পাড়ার বাসিন্দা বিপিন রায়ের মেয়ে জ্যোতি ওরফে বেলির সঙ্গে ওই পাড়ারই বাসিন্দা স্বপন রজকের বিয়ে হয়। তাদের দুই সন্তানও আছে।

মৃতার বাবা বিপিন রায়ের অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই এক লক্ষ টাকা ও সোনার গয়নার দাবিতে মেয়ের উপর শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার করত স্বামী রজক ও শ্বশুর-শ্বাশুড়ি।

মেয়ের শ্বশুরবাড়ির লোকজনের দাবি মেটাতে পারেনি বিপিনবাবুর। এদিকে বাপের বাড়ি থেকে টাকা আনতে না পারায় অত্যাচারের মাত্রা ক্রমশ বেড়েই চলছিল।

এরপর সোমবার রাতে জ্যোতিকে আগুনে পুড়িয়ে খুন করে স্বামী, শ্বশুর ও শ্বাশুড়ি। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ডালখোলা থানার পুলিশ।

Author

Share Please

Make your comment