পার্সোনালিটি টেস্ট: খাওয়ার পদ্ধতি দেখেই চেনা যাবে ব্যক্তিত্ব, জেনে নিন আপনার খাদ্যাভ্যাস কী বলে

Loading

সাইকোলজি ফ্যাক্টস: অল্প সময়ে কাউকে চেনা কঠিন। অন্য মানুষ তো দূরের কথা, নিজের ব্যক্তিত্ব সম্পর্কেও আমরা জানি না। কিন্তু আমরা মানুষ সম্পর্কে জানতে পারি তাদের খাদ্যাভ্যাসের মাধ্যমে।

 

খাদ্যাভ্যাস: মানুষ খুবই রহস্যময়। তার মনে কি চলছে, ভেতরে কেমন আছে সে? এটা জানা কারো পক্ষেই কঠিন। আমাদের অভ্যাস আমাদের ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে বলে। হাঁটা, ঘুম, বসা এমনকি খাওয়া আমাদের আচরণ সম্পর্কে অনেক কিছু বলে। আমাদের খাদ্যাভ্যাস আমাদের সম্পর্কে অনেক তথ্য দেয়। কেউ ধীরে খায় আবার কেউ দ্রুত খায়। এই ধরনের অভ্যাস বিভিন্ন ব্যক্তিত্বকে প্রতিফলিত করে। মনোবিজ্ঞান অনুসারে, আমরা কারও অভ্যাস থেকে তার আচরণ খুঁজে বের করতে পারি। আপনি যদি আপনার ব্যক্তিত্ব বা অন্যের ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে জানতে চান তবে আপনি তাদের খাদ্যাভ্যাস দেখে যে কারও সম্পর্কে জানতে পারেন। তো চলুন জেনে নিই আপনার খাদ্যাভ্যাস আপনার সম্পর্কে কী তথ্য দেয়।

https://news.google.com/publications/CAAqBwgKMJ-knQswsK61Aw?hl=en-IN&gl=IN&ceid=IN:en

 

ফাস্ট ফুডিজ

 

অনেকেই খাবার এত তাড়াতাড়ি খেয়ে ফেলেন যে ঠিকমতো চিবিয়ে খেতেও পছন্দ করেন না। এই ধরনের মানুষ জীবনে সবকিছু পাওয়ার তাড়া থাকে। এই লোকেরা দ্রুত প্রতিটি ইচ্ছা পূরণ করতে চায়। যারা দ্রুত খায় তারা উচ্চাভিলাষী। ক্যারিয়ার হোক বা অন্য কিছু, সব বিষয়েই অধৈর্যতা আছে।

 

ধীর ভক্ষণকারী

 

যারা ধীরে ধীরে কাজ করে তাদের প্রায়ই দোষ দেওয়া হয়। কিন্তু ধীরে ধীরে খাওয়া মানুষ প্রশংসার যোগ্য। যারা ধীরে ধীরে খান তাদের অনেক ধৈর্য এবং আত্মনিয়ন্ত্রণ থাকে। যারা আরামে খায় তাদের নিজেদের উপর নিয়ন্ত্রণ থাকে, এই ধরনের মানুষ ইতিবাচক হয়। এই মানুষগুলো জীবন নিয়ে হতাশ হয় না। আমাদের পার্সোনালিটি টেস্ট সাইকোলজির উপর ভিত্তি করে করা হয়, এটা ঠিক যে আপনি কারো মন পড়েছেন।

Author

Share Please

Make your comment