Mon. May 16th, 2022
0 0
Read Time:3 Minute, 5 Second

আমফানে ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণের টাকায় পাঁচিল মেরামত, কাঠগড়ায় তৃণমূল বুথ সভাপতি

কাকদ্বীপ: আমফানের ক্ষতিপূরণের টাকায় পাঁচিল সংস্কার! যার অভিযোগে কাঠগড়ায় কাকদ্বীপের এক তৃণমূল বুথ সভাপতি। কাকদ্বীপের স্বামী বিবেকানন্দ গ্রাম পঞ্চায়েতের অক্ষয়নগরে তৃণমূলের বুথ সভাপতি বেবি দাসের বিরুদ্ধে এমনটাই অভিযোগ ঊঠেছে।

আমফানে প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তদের টাকা না দিয়ে তিনি তাঁর পরিবারের সাতজন সদস্যের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকা ঢুকিয়েছেন। এই অভিযোগে তৃণমূলের ওই বুথ সভাপতির বাড়ির সামনে ক্ষতিপূরণের টাকা না পাওয়া মহিলারা বিক্ষোভ দেখান। পুলিশ এসে তদন্তের আশ্বাস দিলে বিক্ষোভ উঠে যায়।

অভিযুক্ত বেবি দাসের বক্তব্য, গ্রামে অবস্থিত একটি মন্দিরের পাঁচিল তৈরির কাজটা জরুরি ছিল। উন্নয়ন খাতে টাকা না থাকায় আমফানের টাকায় পাঁচিল সংস্কারের কথা ছিল। তাই ওই অ্যাকাউন্টগুলি থেকে ক্ষতিপূরণের টাকা তুলে পাঁচিল সংস্কারের কাজ হবে।

তাহলে আমফানে ক্ষতিপূরণে সরকারি বরাদ্দ টাকা কি পাবেন না? এই প্রশ্নের উত্তরে গ্রামবাসীদের একটু ধৈর্য ধরতে বলছেন বুথ সভাপতি। তিনি বলেন, উন্নয়ন খাতে টাকা এলে সেই টাকা ক্ষতিপূরণের জন্য দেওয়া হবে প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তদের।

এমনই আরও এক অভিযোগ উঠেছে কাকদ্বীপের এক পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতির। ত্রাণের অর্থ ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে না বিলি করে, তা আত্মীয়দের মধ্যে বিলি করা হয়েছে। এমনই অভিযোগ উঠল কাকদ্বীপ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মমতাজ মোল্লার বিরুদ্ধে।

অভিযোগ, তিনি আমফানের ক্ষতিপূরণের টাকা নিজের পরিবারের সদস্যদের পাইয়ে দিয়েছেন। দুর্গতদের আরও অভিযোগ, নেতাজি গ্রাম পঞ্চায়েতের শিবনগর পূর্বপাড়ার বাসিন্দা পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মমতাজ মোল্লার পাকাবাড়ি থাকা সত্ত্বেও ক্ষতিপূরণের টাকা পেয়েছেন তাঁর স্বামী, পুত্র, শাশুড়ি ও ননদ। বিজেপি এই ঘটনায় বিডিও ও পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতিকে শোকজের দাবি তুলেছে।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %
শেয়ার করে ভারতীয় হওয়ার গর্ব করুন

Average Rating

5 Star
0%
4 Star
0%
3 Star
0%
2 Star
0%
1 Star
0%

আপনার মতামত জানান

%d bloggers like this: