“রাজনীতি থেকে অবসর নেননি বাবুল”, দাবি রুদ্রনীলের

0
294

 

লড়াই ২৪ ডেস্ক: কিছুদিন আগেই রাজনীতি থেকে অবসর নেওয়ার কথা জানান বাবুল সুপ্রিয়। প্রথমে সাংসদ পদ ছেড়ে দেওয়ার কথা জানালেও পরে তিনি সিধান্ত নেন সাংসদ পদে অটুট থাকবেন। কিন্তু কোনোরকম রাজনৈতিক কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করবেন না। ব্যাপারটা কেমন রাজনীতিতে থেকে অরাজনৈতিক। আর এই রাজনৈতিক-অরাজনৈতিক মিশ্রিত মন্তব্য নিয়ে বিতর্ক উঠেছিল তুঙ্গে। আপাতত সেই বিতর্কের মধ্যে আরও চাঞ্চল্যকর দাবি করে দিলেন রুদ্রনীল ঘোষ। তিনি জানিয়েছেন, “বাবুল সুপ্রিয় BJP ছাড়েননি। রাজনীতিও ছাড়েননি। সক্রিয় রাজনীতি থেকে যদি তার অবসর নেওয়ার হত তাহলে তিনি সাংসদ পদও ছেড়ে দিতেন।”

তিনি বলেন, “বাবুল সুপ্রিয় রাজনীতি ছাড়েননি। কিছু সময়ের জন্য কেউ রাজনীতি থেকে বিরতি নিতেই পারেন। আগে তিনি মন্ত্রী ছিলেন এখন তিনি মন্ত্রী নেই, এর বাইরে কিছুই পরিবর্তন হয়নি। যদি তিনি সক্রিয় রাজনীতি থেকে অবসর নিতেন, তাহলে তিনি সাংসদ পদও ছেড়ে দিতেন। সাংসদ পদে থাকা মানেই মানুষের জন্য রাজনৈতিক দায়িত্ব পালন করা।” তিনি আরও জানান, বাবুল সুপ্রিয়ের সঙ্গে সম্প্রতি তার কথা হয়েছে। যদিও দল ত্যাগ কিছু জানাননি তিনি। কলকাতায় এলে সাক্ষাৎ প্রসঙ্গেই বাবুলের সঙ্গে তার কথা হয়েছে।

আরও পড়ুন……….আজই শেষ হচ্ছে লোকসভার বাদল অধিবেশন

রুদ্রনীল এদিন আরও বলেন, ‘তৃণমূলের মুখ্যপাত্র ছাড়া কাউকেই ক্যামেরার সামনে দেখা যায় না, তার মানে কি তাঁরা রাজনীতিতে কোণঠাসা। কেউ রাজনৈতিক দৌড়ঝাঁপ থেকে সাময়িক ভাবে বিরতি নিতেই পারে। তার মানে এই নয় যে তিনি রাজনীতি থেকে অবসর গ্রহণ করেছেন।’

উল্লেখ্য, বাবুল সুপ্রিয় BJP ছাড়েনি, এমনটা রুদ্রনীল দাবি করলেও রাজনীতির আঙিনা থেকে দেখলে দেখা যাবে, বাবুল সুপ্রিয়র স্পষ্ট বক্তব্য। তিনি জানিয়েছিলেন,রাজনীতি ছাড়ার সিধান্ত থেকে পিছু হটছি না। সাংসদ পদে থাকছি। তার কথায়, তিনি প্রমাণ করে দেবেন রাজনীতিতে না থেকেও সাংসদের দায়িত্ব পালন সম্ভব।

Advertisement
শেয়ার করে ভারতীয় হওয়ার গর্ব করুন

আপনার মতামত জানান