বিতর্কিত মন্তব্যে দেশ-দ্রোহিতার তকমা পেল অভিনেত্রী

0
215

 

লাক্ষাদ্বীপ: লাক্ষাদ্বীপের বিতর্কিত প্রশাসককে ‘জৈব অস্ত্র’ বলার অভিযোগে দেশদ্রোহিতার মামলা দায়ের করা হল লাক্ষাদ্বীপের এক অভিনেত্রী আয়েশা সুলতানার বিরুদ্ধে। তিনি বলেছিলেন, ‘কেন্দ্র লাক্ষাদ্বীপের বাসিন্দাদের উপর প্রফুল প্যাটেলের মতো একটি জৈব অস্ত্র ব্যবহার করছে।’ দ্বীপপুঞ্জের রাজধানী কাভারাত্তি থানায় তার বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার মামলা দায়ের করেন লাক্ষাদ্বীপের বিজেপি সভাপতি সি আব্দুল কাদের হাজি।

আরও পড়ুন….অবশেষে ঘর-ওয়াপসি মুকুলের

সম্প্রতি মালয়ালম চ্যানেল মিডিয়াওয়ান টিভিতে লাক্ষাদ্বীপের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে আয়েশা বিতর্কিত মন্তব্য করেন বলে অভিযোগ। সেখানে আয়েশা লাক্ষাদ্বীপের প্রশাসক প্রফুল খোড়া প্যাটেলকে জৈব অস্ত্র বলে কটাক্ষ করেন। সেখান থেকেই শুরু বিপত্তি। প্রতিবাদে সরব হয়ে পড়ে বিজেপি। কেরালাতে বিজেপি সরকার আয়েশার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে।

একজন চলচিত্র জগতের সদস্য হিসাবে লাক্ষাদ্বীপ একাধিকবার সংস্কার ও বিতর্কিত সিধান্ত নিয়ে সরব হয়েছেন আয়েশা। দ্বীপপুঞ্জ ও প্রতিবেশী রাজ্য কেরালাতেও বিদ্বজ্জন-নাগরিক সমাজে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে নিন্দার ঝড় উঠেছে। আয়েশা ফেসবুকে নিজের মন্তব্যের যৌক্তিকতা লিখেছেন, “আমি টিভি চ্যানেলে জৈব অস্ত্র কথাটি ব্যবহার করি। আমার মনে হয়েছে, প্যাটেল এবং তার সিধান্তগুলি জৈব অস্ত্রের সমান। প্যাটেলের কারণে লাক্ষাদ্বীপে করোনার সংক্রমণ বেড়ে গেছে। আমি ওনাকে বলেছি, কেন্দ্র বা দেশকে বলিনি। এছাড়া আর কি বলবো।”

লাক্ষাদ্বীপের সাহিত্য প্রবর্তক সঙ্গম আয়েশার পাশে দাঁড়িয়েছে। সংস্থার মুখপাত্র কে বাহির জানিয়েছেন, “আয়েশাকে দেশদ্রোহী তকমা দেওয়া উচিত হয়নি। প্রশাসনের অমানবিক সিধান্তের করেছেন তিনি। প্যাটেলের কারণেই লাক্ষাদ্বীপে করোনা সংক্রমণ বেড়েছে। লাক্ষাদ্বীপের সমস্ত সাহিত্য সংগঠন আয়েশার পাশে আছে।”

শেয়ার করে ভারতীয় হওয়ার গর্ব করুন

আপনার মতামত জানান