১২ বছরের কিশোরীকেও নামিয়েছিল দেহ ব্যবসায়, মহিলাকে কঠোর শাস্তি আদালতের

0
51

নয়াদিল্লি: ১২ বছরের এক বালিকাকে অপহরণ করে তাকে দেহ ব্যবসায় নামতে বাধ্য করার অভিযোগে গীতা অরোরা ওরফে সোনু পঞ্জাবনকে ২৪ বছরের কারাদন্ডের সাজা শোনাল দিল্লির দ্বারকা আদালত।

কারাদণ্ডের পাশাপাশি তার ৬৪,০০০ টাকা জরিমানা করেছে আদালত। তার হয়ে বেদওয়াল গত বছর ১১ সেপ্টেম্বর ওই ১২ বছরের মেয়েটিকে অপহরণ করে, তারপর তাকে বারবার বিভিন্ন লোকের কাছে বিক্রি করা হয়। দেহ ব্যবসায় নামানোর জন্য সোনু পঞ্জাবনও কিনে নেয় তাকে।

সোনু পঞ্জাবনই শুধু নয়, সোনুর ঘনিষ্ঠ সন্দীপ বেদওয়ালকে সাজা শুনিয়েছে দ্বারকা আদালত। সন্দীপকে ২০ বছরের জেল ও ৬৪ হাজার টাকার জরিমানার সাজা দিয়েছে এদিন আদালত।

২০১৭ সালের ডিসেম্বরে দিল্লি পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয় সোনু। ছয় মাস ধরে তাকে ধরার জন্য তল্লাশি চালিয়ে ছিল পুলিশ বলে জানা যায়। দিল্লি, উত্তর প্রদেশ ও হরিয়ানা জুড়ে সোনুর দেহব্যবসার চক্র ছড়ানো ছিল। এই চক্রে আর কারা কারা জড়িত তার খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

শেয়ার করে ভারতীয় হওয়ার গর্ব করুন

আপনার মতামত জানান