Mon. May 16th, 2022
0 0
Read Time:1 Minute, 55 Second

Rail police

লড়াই ২৪ ডেস্ক: চলন্ত ট্রেনে অপরাধের অভিযোগ জানাতে প্রায়শই হেনস্থার শিকার হতে হয় যাত্রীদের। একবার এক ক্যানিংয়ের তরুণীর চলন্ত ট্রেনে মোবাইল চুরি হয়ে যায়। কিন্তু রেল পুলিশের কাছে গেলেও নেওয়া হয়নি তাঁর অভিযোগ। অভিযোগ, তাঁকে পাঠিয়ে দেওয়া হয় সোনারপুরের জিআরপি’র কাছে।

এবার এই হেনস্থা বন্ধ করতেই নয়া পথ নির্বাচন করলো রাজ্য সরকার। শিয়ালদহ রেল পুলিশ এলাকার পাঁচটি ফাঁড়িকে রূপ দেওয়া হল তদন্ত কেন্দ্রের। ক্যানিং, ব্যারাকপুর, বসিরহাট, কল্যাণী এবং বিধাননগর রোডে রেল পুলিশের ফাঁড়িকে ওই তদন্ত কেন্দ্রে পরিবর্তিত করা হয়েছে। এখন থেকে পাঁচটি কেন্দ্রেই যাত্রীদের অভিযোগ নেওয়া হবে এবং মামলা দায়ের করা হবে তদন্ত করে। এই সব তদন্তকেন্দ্রে নিয়োগ করা হবে অতিরিক্ত পুলিশকর্মী ও সিভিক ভলিন্টিয়ার।

আরও পড়ুন…………ওনামের ধাক্কায় কেরলে সংক্রমণ বৃদ্ধি ৩০%

রেল পুলিশ সুত্রে খবর, আগে ফাঁড়ি ছিল। কিন্তু তদন্ত করার উপায় ছিল না। গ্রেফতার করলেও রাখার জন্য লকআপ ছিল না। বহু দুরের রেল পুলিশের থানায় গিয়ে ধৃতদের রাখতে হত। অনেকের বক্তব্য, তদন্ত কেন্দ্র চালু হলেও কর্মী বা পরিকাঠামো পুরনো আমলের। সুতরাং সব ক্ষেত্রেই ভুগতে হচ্ছে রেল পুলিশকে।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %
শেয়ার করে ভারতীয় হওয়ার গর্ব করুন

Average Rating

5 Star
0%
4 Star
0%
3 Star
0%
2 Star
0%
1 Star
0%

আপনার মতামত জানান

%d bloggers like this: