বাবার অত্যাচারে অন্তঃসত্ত্বা কিশোরী, বেধড়ক মার অভিযুক্তকে

0
208

কলকাতা: মায়ের অনুপস্থিতির সুযোগ মেয়ের উপর লাগাতার যৌন নির্যাতন করার অভিযোগ উঠল সৎ বাবার বিরুদ্ধে। ২-৩ মাসের মধ্যে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে ওই কিশোরী। এই ঘটনা জানাজানি হয়ে যাওয়ার পর স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযুক্তকে ল্যাম্প পোস্টে বেঁধে বেধড়ক মারধর করে। শনিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে বড়তলা এলাকায়। ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ এবং অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায়। স্থানীয় সূত্রে খবর, ১২ বছরের ওই নিগৃহীতার মা পেশায় যৌনকর্মী। কিশোরীর বাবা ১০ বছর আগে স্ত্রীকে ছেড়ে চলে যান। তারপর থেকে কিশোরীর মা মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে সঞ্জয় পাত্র নামে এক যুবকের সঙ্গে থাকতে শুরু করে বড়তলায়।

নির্যাতিতার মায়ের দাবি, সঞ্জয় মেয়ের সঙ্গে আগে কখনও অশালীন ব্যবহার করেনি। তবে ২-৩ মাস আগে ওই মহিলা খেয়াল করেন যে তাঁর কিশোরী মেয়ের ঋতুস্রাব বন্ধ হয়ে গিয়েছে। সন্দেহ হয় তাঁর। চিকিৎসকের কাছে যান। পরীক্ষা করা হয়।

শনিবার সকালে রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পরই তিনি জানতে পারেন ওই কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা। এরপর মেয়েকে বকাঝকা করতে শুরু করেন মা। তখন মেয়ে তাঁকে সব কথা বলে। অভিযোগ, মাকে খুন করার হুমকি দিয়ে প্রতিদিন কিশোরীকে সৎ বাবা ধর্ষণ করত।

এলাকার বাসিন্দারা বিষয়টি জানার পরেই অভিযুক্তকে ল্যাম্প পোস্টে বেঁধে বেধড়ক মারধর করে। অভিযুক্তের চরমতম শাস্তির দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা। বড়তলা থানা সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত সঞ্জয় পাত্র, কিশোরীটি এবং তাঁর মা, ৩ জনকেই থানায় নিয়ে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

শেয়ার করে ভারতীয় হওয়ার গর্ব করুন

আপনার মতামত জানান