জল নেই করোনা হাসপাতালে, তুমুল বিক্ষোভ করোনা রোগীদের

0
33

জল নেই করোনা হাসপাতালে, তুমুল বিক্ষোভ করোনা রোগীদের

জলপাইগুড়ি: করোনা হাসপাতাল, পাশেই কোয়ারেন্টাইন সেন্টার। করোনার মতো সংক্রামক ব্যধির চিকিৎসা চলছে। পৃথক করে রাখা হচ্ছে আক্রান্তদের। অথচ সেই কোভিড হাসপাতাল চত্বরে জলই নেই।

এমনই অভিযোগে শুক্রবার রাতের দিকে রোগী বিক্ষোভে উত্তপ্ত হয় উঠল জলপাইগুড়ির সরকারি কোয়ারেন্টাইন সেন্টার এবং হাসপাতাল। স্বাস্থ্যবিধি শিকেয় তুলে ওয়ার্ড থেকে রোগীরা বেরিয়ে এলেন গেটের কাছে।

জল না থাকায় অসুবিধার কথা জানিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন। পরিস্থিতি এতটাই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে যে স্থানীয় থানার ওসিকে ঘটনাস্থলে ছুটে যেতে হয়। উত্তেজিত রোগীদের বুঝিয়ে পাঠানো হয় ওয়ার্ডে। এই ঘটনায় বেশ চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে জলপাইগুড়ি কোভিড হাসপাতালে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই হাসপাতালের পাম্প খারাপ হয়ে গিয়েছিল শুক্রবার। কিন্তু দিনভর পাম্প সারাই করা যায়নি। ফলে যেটুকু জল ছিল, তা দিনভর ব্যবহারের ফলে শেষ হয়ে যায়।

সন্ধের পর থেকে আর এক ফোঁটাও জল পাননি রোগীরা। তা নিয়ে প্রাথমিকভাবে অভিযোগ করার পরও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তরফে কিছু জানানো হয়নি বা কোনও আশ্বাস দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ রোগীদের।

এরপরই রোগীদের মধ্যে বিক্ষোভ দানা বাঁধতে থাকে। জল না থাকায় হাজারও অসুবিধার মধ্যে পড়েন তাঁরা। সন্ধের পর নিজেদের ওয়ার্ড থেকে বেরিয়ে সোজা করোনা আক্রান্তরা হাসপাতালের গেটের কাছে চলে যান। তাঁদের দেখে নিরাপত্তারক্ষী সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালের মূল গেটটি বন্ধ করে দেন।

সে কারণেই কেউ হাসপাতালের বাইরে বেরতে পারেননি। সেখানে জমায়েত হয়েই তাঁরা বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। খবর পৌঁছয় কোতোয়ালি টাউন থানায়। পরিস্থিতি সামাল দিতে ছুটে যান টাউন থানার ওসি এবং অন্যান্য পুলিশকর্মীরা।

ওসি নিজের রোগীদের সঙ্গে কথা বলেন। জেলাশাসকও হস্তক্ষেপ করেন। সমস্যার দ্রুত সমাধানের আশ্বাস দেন তাঁরা। এরপর শান্ত হন রোগীরা।

শেয়ার করে ভারতীয় হওয়ার গর্ব করুন

আপনার মতামত জানান