গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে গুলি বিদ্ধ হয়ে মৃত্যু তৃণমূল কর্মীর

0
52

দক্ষিন ২৪ পরগনা: এবার তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দের ফলে বুধবার উত্তাল হয়ে উঠল দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসন্তী। দলের মধ্যে গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে চললো গুলি৷ ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ১ তৃণমূল কর্মীর। আহত দুপক্ষের ১২ জন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার ভোররাত থেকেই বাসন্তীর ফুলমালঞ্চ এলাকায় শুরু হয় সংঘর্ষ। স্থানীয় তৃণমূল কর্মী ও যুব সংগঠনের সদস্যদের মধ্যে ঝামেলা বাধে। প্রথমে বাচসা চললেও পরে শুরু হয় মারামারি। এর মধ্যেই দফায় দফায় চলতে থাকে গুলি-বোমা।

ঘটনাস্থলেই গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান তৃণমূল কর্মী আমির আলী মোল্লা, বয়স ৫০ বছর। অভিযোগ, আমির আলিকে গুলি করে খুন করেছে যুব তৃণমূলের সমর্থকরা৷ যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে যুব তৃণমূল৷ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় বাসন্তী থানার পুলিশ।

জানা গিয়েছে, বুধবার ভোরে নামাজ পড়তে গিয়েছিলেন আমির আলী। সেই সময়ে আচমকা তাঁর গায়ে গুলি লাগে। দুপক্ষের কমপক্ষে ১২ জন আহত হয়েছেন। তাঁদের বাসন্তী হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে।

জানা যাচ্ছে বাসন্তী এলাকায় বহুদিন ধরেই যুব ও মূল সংগঠনের মধ্যে বিবাদ চলছে। মূলত এলাকা দখলকে কেন্দ্র করেই সংঘর্ষ হয়েছে বলে দাবি করেছে স্থানীয় বাসিন্দারা। বহুবার দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা তৃণমূল এই বিবাদ মেটানোর চেষ্টা করে, কিন্তু তা বিফলে গিয়েছে। ফলে ক্রমশ লাগামছাড়া হয়ে গিয়েছে পরিস্থিতি। যার ফলেই বুধবার আবার উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকা।

শেয়ার করে ভারতীয় হওয়ার গর্ব করুন

আপনার মতামত জানান