উত্তরপ্রদেশে মেডিক্যাল ছাত্রীকে খুন ও হেনস্থার অভিযোগে শ্রীঘরে ডাক্তার

0
144
ছবি:প্রতীকী

উত্তরপ্রদেশে মেডিক্যাল ছাত্রীকে খুন ও হেনস্থার অভিযোগে শ্রীঘরে ডাক্তার

উত্তরপ্রদেশ: ২৫ বছরের এক মেডিক্যাল ছাত্রীর অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে উত্তেজনা ছড়াল উত্তরপ্রদেশের আগ্রায়। এক ডাক্তার তাঁকে হেনস্থা করত বলে অভিযোগ মৃতার পরিবারের। পুলিশ অভিযুক্ত ডাক্তারকে গ্রেফতার করেছে।

লখনউ থেকে ২২০ কিলোমিটার দূরে জালাউন শহরে কাজ করেন ডাক্তারকে। আগ্রায় মেডিক্যালে স্নাতকোত্তরের ছাত্রী ছিলেন ওই যুবতী। তাঁর পরিবার পুলিশকে জানিয়েছে, মঙ্গলবার থেকে মেয়েটি নিখোঁজ ছিল। এই অভিযোগ পেয়ে অপহরণের মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করে পুলিশ।

তার কিছুক্ষণ পরে ছাত্রীর দেহ উদ্ধার হয়। আগ্রার পুলিশ অফিসার বাবলু কুমার জানান, ‘মেয়েটির পরিবার পুলিশকে জানিয়েছে, জালাউনের ডাক্তার তথা এক মেডিক্যাল অফিসার মেয়েটিকে হেনস্থা করত। ওকে ভয়ও দেখাত।’

অফিসার আরও বলেন, ‘বুধবার সকালে ওই ছাত্রীর দেহ উদ্ধার করা হয়। দেহটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্তকে হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। মেয়েটির মাথায় ও ঘাড়ে আঘাত ছিল।

ক্ষতের চিহ্নের থেকে বোঝা যায় যে ধস্তাধস্তি হয়েছে। আমরা আশপাশের এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ বের করে তদন্ত করা হচ্ছে।’

গত কয়েক সপ্তাহে যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে পরপর মহিলাদের উপর অপরাধের ঘটনা ক্রমে বেড়ে চলেছে। তার ফলে সরকারের বিরুদ্ধে টানা তোপ দেগে চলেছে বিরোধীরা।

শেয়ার করে ভারতীয় হওয়ার গর্ব করুন

আপনার মতামত জানান