সন্ধান চাই: বিনোদ!

0
42

সন্ধান চাই: বিনোদ!

নয়াদিল্লি: কে এই বিনোদ? কী করেছে সে? কেন তাঁকে মরিয়া হয়ে খুঁজছে সবাই? রহস্যটা কী? আসলে সবটাই মিমের কামাল!

বর্তমান সময়ে মিম খুব জনপ্রিয় ও আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে নেটিজেনদের কাছে। যেকোনও রকম ঘটনাই এখন মিম বানানোর বিষয়বস্তু হয়ে দাঁড়িয়েছে, তা সে প্রধানমন্ত্রীর ভুল করে ‘আদিত্য যোগীনাথ’ বলাই হোক কিংবা কোনও সাধারণ মানুষের টিকটক ভিডিও। মিম এখন ছেয়ে গিয়েছে ফেসবুক থেকে টুইটারে। সম্প্রতি এই মিম জগৎ দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন ‘বিনোদ’।

কিন্তু প্রশ্ন হল, কে এই বিনোদ? কেন এই নাম নিয়ে মিমজগতে ঝড় উঠল? এরই উত্তর খুঁজছে নেটিজেনরা। তবে, তাঁদের জন্য সুখবর এই যে, বিনোদ আসলে কেউই না। মানে জনপ্রিয় বা পরিচিত কেউই নন বিনোদ।

কিন্তু বিনোদের একটা কমেন্টের পর থেকেই এখন মিমজগতের ট্রেন্ডিং-এ উঠে এসেছে এই নামটি। হ্যাশট্যাগ বিনোদ এখন টুইটারের নতুন ট্রেন্ড হিয়ে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু এর সূত্রপাত ঠিক কোথা থেকে হল?

শ্লে পয়েন্ট নামের ইউটিউব চ্যানেলে একটি ভিডিও দেখার পরে বিনোদ এখন মিমজগতের অঘোষিত মিস্টার এক্স হয়ে গিয়েছে। ওই ভিডিওটির ক্যাপশনে লেখা হয় ‘বিনোদ। কে এই বিনোদ?’ এই ভিডিওতে দেখানো হয় তাদের ভিডিওতে করা কিছু ভারতীয়দের সমস্ত মজাদার এবং অদ্ভুত কমেন্টের তালিকা। সেখানেই উদ্ভব হয় এই ‘বিনোদ’-এর।

তবে কমেন্ট করতে গিয়ে খুব একটা কষ্ট করতে হয়নি বিনোদকে। তিনি ওই চ্যানেলের ভিডিওতে কমেন্ট করেছেন ‘বিনোদ’। হ্যাঁ, শুধু এটুকুই তাঁর কমেন্ট। বিনোদ থারু নামের এক ব্যক্তি শুধু নিজের নাম টুকু লিখেই কমেন্ট করেছেন আর তাঁর এই কমেন্ট পড়ে নেটিজেনরা হাসি থামাতে পারছেন না।

অপরিচিত এই ব্যক্তি ইউটিউব ভিডিওতে গিয়ে নিজের নাম লিখে কমেন্ট করেছেন আর তাঁর এই উদ্ভট কাজের জন্যই ‘বিনোদ’ মিম জগতের বর্তমান ট্রেন্ড।

শেয়ার করে ভারতীয় হওয়ার গর্ব করুন

আপনার মতামত জানান