টেটের প্রশ্ন ভুল, জরিমানার মুখে পড়লো প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি

0
181

 

লড়াই ২৪ ডেস্ক: টেটের ‘প্রশ্ন ভুল’ মামলায় বিপাকে পড়লো প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি মানিক ভট্টাচার্য। বিপুল টাকা জরিমানা করলো হাইকোর্ট, খুশি মামলাকারীরা।

ঘটনার সূত্রপাত ২০১৪। এই বছর টেট পরীক্ষার পর হাইকোর্টে দারস্থ হয় একাংশ পরীক্ষার্থী। তাঁদের অভিযোগ, ‘৬টি প্রশ্ন ভুল ছিল।’ অভিযোগ অনুসারে মামলা দায়ের করা হয়। এই মামলা চলাকালীন হাইকোর্টের বিচারপতি ছিলেন সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়। তাঁর নির্দেশে বিশ্বভারতী বিশেষজ্ঞদের নিয়ে একটি প্যানেল তৈরি করে। পরবর্তীতে এই বিশেষজ্ঞরা জানান, সেই ৬টি প্রশ্ন ভুল ছিল।

আরও পড়ুন………….প্ল্যাকার্ড হাতে রাস্তায় আফগান নারী, চোখে স্বপ্ন স্বাধীনতার

বিশেষজ্ঞদের তথ্য অনুযায়ী ২০১৮ সালে ৩ অক্টোবর আদালত নির্দেশ দেয়, যারা এই ৬টি প্রশ্নের উত্তর দিয়েছিল তাঁদের প্রত্যেককে নম্বর দিতে হবে। কিন্তু পরে অভিযোগ ওঠে পর্ষদ হাইকোর্টের নির্দেশ পালন করেনি। পরবর্তীতে ৬টি প্রশ্নে নম্বর দেওয়ার দাবিতে পর্ষদে দারস্থ হন ১৯ জন পরীক্ষার্থী। অভিযোগ, সেখানে তাঁদের সহযোগিতা তো দূর, উল্টে হেনস্থা করা হয়। এরপর সেই ১৯ পরীক্ষার্থী কলকাতা হাইকোর্ট দারস্থ হন। শুক্রবার অরিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের সিঙ্গল বেঞ্চে শুনানি হয় সেই মামলার। সেখানেই প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি মানিক ভট্টাচার্যকে বিপুল টাকা জরিমানা করল কলকাতা হাইকোর্ট।

আদালতের তরফে মানিক ভট্টাচার্যকে ১৯ জন আবেদনকারীকে ২০ হাজার টাকা করে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এই টাকা দিতে হবে নিজের উপার্জন থেকে। এছাড়া আগামী ৭ দিনের মধ্যে মামলাকারী পরীক্ষার্থীদের ওই ৬ টি প্রশ্নের নম্বর দিতে হবে। পরবর্তী ৭ দিনের মধ্যে তাঁদের নিয়োগের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

Advertisement
শেয়ার করে ভারতীয় হওয়ার গর্ব করুন

আপনার মতামত জানান