পরকীয়ায় বাঁধা, স্ত্রী-র হাতেই খুন স্বামী

0
822

 

লড়াই ২৪ ডেস্ক: ফের মনুয়া কান্ডের ছায়া মালদহে। পিসতুতো দেওরের সঙ্গে হাত মিলিয়ে স্বামীকে খুন করলো স্ত্রী।

ঘটনা মালদহের হরিশচন্দ্রপুরের। মৃত ওই ব্যাক্তি রঙ মিস্ত্রির কাজ করতেন। বহু বছর আগেই বিয়ে করেছিলেন তিনি। রয়েছে আঠারো বছর এক সন্তানও। গত বছর লকডাউনের সময় থেকে তার বাড়িতে আসতে শুরু করে তার পিসতুতো দাদা।

লকডাউনে কাজ না থাকায় ভাইয়ের রঙের কাজে সাহায্যের উদ্দেশ্যে আসেন সেই পিসতুতো দাদা। কিন্তু একসাথে থাকতে থাকতে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক তৈরি করে মৃতের স্ত্রী-এর সঙ্গে। যার কিছুটা আঁচও করতে পেরেছিলেন মহিলার স্বামী, বাঁধাও দিয়েছিলেন। কিন্তু লাভের লাভ বলতে কিছুই হয়নি।

Read more………….Corona Case Update: সংক্রমণে হ্রাস, কিছুটা হাঁফ ফেলে বাঁচলেন চিকিৎসক মহল

স্বামীর বাঁধা মানতে নারাজ মহিলা। অভিযোগ, পরকীয়ায় পথের কাঁটা সরাতে স্বামীকে খুন করার পরিকল্পনা করে সে। সেই অনুযায়ী, পিসতুতো দাদার সঙ্গে নিজের স্বামীকে খুন করার পরিকল্পনা করে ফেলে মহিলা। এরপর পরিকল্পনা মতো মঙ্গলবার রাতে হাত-পা বেঁধে মাথা থেতলে খুন করা হয় স্বামীকে। খুনের পর দেহ সিঁড়ির ঘরে রেখে এই মহিলা। এরপরই ওই মহিলা ও পিসতুতো দেওর পালানোর পরিকল্পনা করছিল, কিন্তু সেই মুহুরতেই ওই মহিলার ১৮ বছরের ছেলে বাবাকে সিঁড়ির নীচে পড়ে কাতরাতে দেখে প্রতিবেশীদের খবর দেয়। প্রতিবেশীরা জড়ো হয়ে যাওয়া পালানোর সুযোগ হাতছাড়া হয়ে যায়। সন্দেহের বশে পুলিশকেও খবর দেয় প্রতিবেশীরা। এরপর পুলিশ এসে দেহ উদ্ধার করে। দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে। আটক করা হয়েছে ছেলেকেও। তার মাধ্যমেই ঘটনার শিকড় অবধি পৌঁছতে চায় পুলিশ।

Advertisement
শেয়ার করে ভারতীয় হওয়ার গর্ব করুন

আপনার মতামত জানান